image description

City of Joy


আমি এই ব্যস্ত শহরের এক ব্যস্ত মানুষ। ছাপোষা, অতি সাধারণ, নির্বিবাদী। অনেকেই মানসিক চাপ আর একঘেয়েমি দূর করতে টুক করে কাছেপিঠে কোথাও ঘুরে আসেন। কর্মব্যস্ততার তাড়নায় আমার সেটুকুও হয়ে ওঠে না। তাই একদিন ঠিক করলাম, এই শহর আমাকে যে ক্লান্তি সযত্নে উপহার দিয়েছে, তা এই শহরকেই ফিরিয়ে দেব। দেখি সে ফেরৎ নেয় কিনা...! এক রবিবাসরীয় বিকেলে ক্যামেরা হাতে তাই বেড়িয়ে পরা। যাকে কেন্দ্র করে সুতানুটি তিলে তিলে কোলকাতা নগরী হয়ে উঠেছে, সেই প্রবহমান স্রোতস্বিনীর তীরেই নিজেকে আত্মসমর্পণ করার সিদ্ধান্ত নিলাম। গিয়ে দেখি, নির্জনতার লেশমাত্র নেই। শহুরে কোলাহল এখানেও থাবা বসিয়েছে। কিন্তু রাগ হল না। বরং সেই নাম না জানা ভিড়ের প্রতি একটা সমবেদনা অনুভূত হল... এরাও নিশ্চই আমার মতই ক্লান্ত প্রাণ হাতে করে একমুঠো সতেজতার ছোঁয়ায় সিক্ত হতে এখানে এসেছে!





আমার শহর কিন্তু আমাকে নিরাশ করেনি। দিন শেষে যখন ঘরে ফিরলাম, তখন আমার সমস্ত শরীর জুড়ে এক অদ্ভুত প্রশান্তি। বাকিদেরও তাই হবে হয়তো। শহরের ক্ষুদ্রান্তে অবিরাম পরিপাক হতে হতে তৈরী হওয়া সবটুকু গ্লানি, শ্লেষ, অবসন্নতা, বিদ্বেষ, পরাজয় এই অনর্গল স্রোত নিমেষে শুষে নিয়ে বহুদূরে পাড়ি দিল। কল্লোলিনী কোলকাতা স্মিত হাসিতে বুঝিয়ে দিল, মন খারাপের সুর বদলাতে এই শহরবাসীদের পরিযায়ী না হলেও চলবে!!